/

এক ঢোকে কাপ চা পান, যুবকের মৃত্যু

8 mins read

কক্সবাজারের ঈদগাঁও এলাকায় বন্ধুদের সঙ্গে বাজি ধরে এক কাপ গরম চা পান করেন মোহাম্মদ মোস্তফা (২০) নামের রোহিঙ্গা যুবক। তারপর বুক জ্বালা পোড়া শুরু হলে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। ঈদগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম কবির মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করেন। যুবক মোস্তফা উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা বলে জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার ইসলামপুর নতুন অফিস বাজারের একটি কুলিন কর্নারে এই ঘটনা ঘটেছে৷ তাওয়াককুল জুস কর্নার নামের দোকানি মোহাম্মদ জমির উদ্দীন জানান, রাতে তিনি বাড়িতে চলে যাওয়ার পর মোস্তফা বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডার ছলে গরম চা পান করে অসুস্থ অবস্থায় তাঁর কাছে যান। এসময় তাঁকে দ্রুত ঈদগাঁও ডায়াবেটিস কেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে মোস্তফার মৃত্যু হয়।

জৈন্তাপুর প্রতিদিন অনলাই পত্রিকার সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন এবং www.jaintapurprotidin.com ক্লিক করুন 

ঈদগাঁও থানার ওসি মোহাম্মদ গোলাম কবির বলেন, তিন বন্ধু একটা চায়ের দোকানে আড্ডা দেওয়ার সময় এক ঢোকে এক কাপ গরম চা পানের বাজি ধরেন। এতে তাঁর জ্বালা পোড়া শুরু হলে যন্ত্রণার উপশমে ঠান্ডা পানীয় ও আইসক্রিম খাওয়ানো হয়। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করে। চিকিৎসক জানিয়েছেন গরম চা পান করতে গিয়ে খাদ্য ও শ্বাসনালি পুড়ে গেছে তার।

ওসি বলেন, ওই যুবকের মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। কেউ কোনো অভিযোগ দেয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x