নোটিশ:
জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।
কোম্পানীগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হামলা ঘটনায় মামলা

কোম্পানীগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হামলা ঘটনায় মামলা

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ইছাকলস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুর রহমান সাজুর উপর হামলার ঘটনায় ইউপি সদস্য সাইদুর রহমানসহ ৭ জনের নাম উল্লেখ্য করে অজ্ঞাতনামা ৮/৯ জনের বিরুদ্ধে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা করেছে।
১৯ মার্চ মধ্য রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি কেএম নজরুল মামলাটি থানায় রেকর্ড করেছে।
এর আগে ১৯ মার্চ সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার ইছাকলস ইউনিয়নের বাগজুর চিলাডহর স্কুলে একটি সালিশ বিচারে উপস্থিত স্থানীয় জনতার সামনে সাইদুর রহমান মেম্বারের নেতৃত্বে কয়েকজন চেয়ারম্যানের উপর অতর্কিত হামলা করে। এঘটনায় আহত চেয়ারম্যানকে ওসামানী মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে মাথায় একাধিক সেলাই লাগে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পায়।
ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদুর রহমান সাজু জানান, নির্বাচনী জেরে আমার প্রতিদন্ধী প্রার্থীর স্বজনেরা আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার করছে এবং বিভিন্ন সময় আমাকে হুমকি প্রধান করে আসছিল। ঘটনার বাগজুর এলাকায় একটি সালিশ বিচার চলাকালে বর্তমান ও সাবেক কয়েক জন চেয়ারম্যান সহ উপস্থিত জনতার সামনে তারা হঠাৎ আমার উপর হামলা করে। তিনি আরও আমার উপর হামলাকারীদের এখন পর্যন্ত পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারে নাই যা খুবই দুঃখ জনক।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও তেলিখাল ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক বলেন, একটি সালিশ বিচারের প্রকাশ্য দিবালোকে আমি সহ আরোও কয়েকজন জনপ্রতিনিধির সামনে একজন ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হামলার ঘটনা আমাকে আতঙ্ক করেছে। ঘটনার সাথে জড়িত প্রকৃত আসামীদের আইনের আওতায় আনা প্রয়োজন না হলে আগামীতেও এই ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে পারে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোম্পানীগঞ্জ থানার এসআই আজিজুর রহমান দৈনিক সিলেট মিরর কে বলেন, মামলার তদন্ত চলছে এবং উল্লেখিত সকল আসামীরা পলাতক থাকায় গেপ্তার করা সম্ভব হচ্ছে না তবে আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য থানা পুলিশ সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি।
কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি কেএম নজরুল জানান, থানা পুলিশ সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে উপজেলার সকল স্থানে শান্তি বজায় রাখার জন্য। অপরাধ করলে কেউ ছাড় পাবে না। এই ঘটনার সাথে জড়িত আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান করা হচ্ছে দ্রুতই তারা গ্রেপ্তার হবে।

প্লিজ সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY Mission It Development ltd.
x
English version