নোটিশ:
জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।
জৈন্তাপুরে মুজিব নগরের ভূমিহীনদের সরকারি ঘর পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক

জৈন্তাপুরে মুজিব নগরের ভূমিহীনদের সরকারি ঘর পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক

মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় নির্মিত জৈন্তাপুর উপজেলার ভূমি ও গৃহহীনদের জন্য নির্মিত মুজিব নগরের ঘর পরিদর্শন করেছেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম.কাজী এমদাদুল ইসলাম।

১২ জুলাই সোমবার বিকাল সাড়ে ৪টায় উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের গুয়াবাড়ী দৃষ্টিনন্দন পরিবেশে নির্মিত ২৩২টি ঘর পরিদর্শন করেন। এসময় উপকারভোগী ভূমি ও গৃহহীন পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন।

 

উপকারভোগী হালিমা বেগম, বেগম বিবি জেলা প্রশাসককে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার প্রতিটি টিনশেডের পাকা ঘর মজবুত ও সুন্দর ভাবে নির্মাণ করা হয়েছে। আমরা এসব ঘর ও জমি পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এখানে শান্তিতে বসবাস করছি।

জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কামাল আহমদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুসরাত আজমেরী হক, সহকারি কমিশনার (ভূমি) ফারুক আহমদ ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সালাহউদ্দিনের উপস্থিতিতে উপকারভোগীদের অভিযোগ আছে কি না জানতে চান।

পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক এম.কাজী এমদাদুল ইসলাম উপকারভোগীদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া এসব ঘর আপনারা সব সময় সুন্দর ও পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখবেন। কোন ঘরের নির্মাণ কাজে ত্রুটি বিচ্ছুতি থাকলে আমরা কাজ করে দিব সবাই এখানে এক সাথে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে সব সময় থাকবেন। পর্যায়ক্রমে মসজিদ, স্কুল, রাস্তা, পানি, বিদ্যুৎ, পুকুর সংস্কার সহ আপনাদের জীবন মানের উন্নয়নে যা দরকার সরকারের পক্ষ হতে সকল ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নির্বাহী কর্মকর্তা নুসরাত আজমেরী হক বলেন, জৈন্তাপুরে প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে সরকারি অর্থায়নে ভূমি ও গৃহহীনদের মধ্যে ২৩২টি পরিবারকে পুনর্বাসিত করা হয়েছে। কিছু দিনের বাকী ৯৮টি ঘর বাকী উপকারভোগীদের মধ্যে হস্তান্তার করা হবে। বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে। উপকারভোগীরা বিশুদ্ধ পানি ব্যবহার করতে পারেন সেজন্য ডিপ টিউবওয়েল বসানো হবে। ডিপ টিউবওয়েলের পাশাপাশি একটি পুকুর সংস্কার করা হবে। স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ হতে তাদের উন্নত জীবন যাপনের জন্য আমরা সবধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

প্লিজ সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Log In

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY Mission It Development ltd.
English version