শ্রীপুর কোয়ারী জিরোলাইনের পাথর উত্তোলন কে কেন্দ্র করে বিজিবির উপর শ্রমিকের হামলা, আহত ১, ১রাউন্ড গুলি বিনিময়

16 mins read

শ্রীপুর কোয়ারী জিরোলাইনের পাথর উত্তোলন কে কেন্দ্র করে বিজিবির উপর শ্রমিকের হামলা, আহত ১, ১রাউন্ড গুলি বিনিময়

শ্রীপুর বন্ধ পাথর কোয়ীর জিরো লাইন হতে পাথর উত্তোলন কে কেন্দ্র করে বিজিবি পাথর খেকু চক্রের হামলা, আত্মরক্ষায় ১রাউন্ড গুলি ছুড়ে বিজিবি, ক্যাম্প কমান্ডার আহত ৷ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ৷

শ্রীপুর পাথর কোয়ারী হতে দীর্ঘ দিন ধরে বিজিবির সহায়তায় পাথর খেকু চক্র পাথর উত্তোলন করে আসছে ৷ এনিয়ে জাতীয় স্থানীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর কয়েক দিন শ্রীপুর পাথর কোয়ারী হতে পাথর উত্তোলন বন্ধ রাখে বিজিবি৷

এদিকে গত তিন দিন ধরে অনবরত পাহাড়ী ঢল ও বৃষ্টির কারেন নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় হতে শ্রীপুর কোয়ারীর ১২৮০ জিরো লাইন হতে শ্রীপুর ও মিনা টিলা ক্যাম্পের কতিপয় টহল টিমের সহায়তায় পুনরায় জিরোলাইন হতে পাথর উত্তোলন করে আসছে পাথর খেকু চক্র ৷

১৮ এপ্রিল সোমবার দুপুর ১২টায় ৪৮ বিজিবির শ্রীপুর ক্যাম্প কামান্ডার সেলিম মিয়া আসামপাড়া আদর্শগ্রাম রাংপানি নদীর ঘাটে সংলগ্ন বিজিবির পোষ্ট ডিউটিরত অবস্থায় পাথর বহনকারী নৌকা আটক করেন ৷ এসময় শ্রমিকরা ক্যম্প কমান্ডারকে জানায় আমরা আপনার বিজিবি দুটি ক্যাম্পকে ১৬ শত টাকা লাইন দিয়ে পাথর আনছি ৷ আপনি কেন বাঁধা দেবেন ৷ এনিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায় কমান্ডার নৌকা না দিলে শ্রমিকরা বিজিবি পোষ্টে হামলা চালায়৷ ঘটনার বেগতিত দেখে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রের বাহিরে চলে গেলে বিজিবি আত্মরক্ষার্থের ১রাউন্ড গুলি ছুড়ে ৷ এ ঘটনায় বিজিবির ক্যাম্প কমান্ডার মো. সেলিম মিয়া (৫৯) আহত হন৷ এদিকে শ্রমিকরা নৌকা নিয়ে চলে যায়৷ আহতদের দ্রুত সিলোটে রেফার্ড করা হয়৷

পরে ক্যাম্প কমান্ডার আহত হওয়ার ঘটনায় সংবাদ দ্রুত এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ঘটনাস্থলে বিজিবি অতিরিক্ত ফোর্স বৃদ্ধি করে ৷ অপরদিকে পাথরখেকু চক্রের সদস্যরা ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে আদর্শগ্রাম এলাকায় সিলেট তামাবিল মহাসড়ক অবরোধ করে ৷

ঘটনার সংবাদ পেয়ে জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কামাল আহমদ, জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বশিরুল ইসলাম, ৪৮ বিজিবি কমান্ডিং অফিসার (সিও) আহমদ, জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমেদ, স্থানীয় গন্যমান্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে রাস্তার বেরিকেট তুলে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখেন ৷ ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে ৷

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল বশিরুল ইসলাম ও উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ বলেন, হামলার ঘটনাটি অত্যান্ত নিনন্দনীয় কাজ ৷ তবে শ্রীপুর পাথর কোয়ারী স্থায়ী ভাবে বন্ধ ৷ এই কোয়ারী এলাকায় কিভাবে পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে তা খতিয়ে দেখা হবে ৷ এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রাখতে অতিরিক্তি বিজিবি ও পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Latest from Blog

x
English version