নোটিশ:
জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।জৈন্তাপুর প্রতিদিন একটি অনলাইন ভিত্তিক জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা । আপনাদের আশে পাশে ঘটে যাওয়া সংবাদটি আমাদের জানান । আমরা সঠিক তথ্য যাচাই করে খবর পোস্ট করবো ।
শিরোনাম :
নবীগঞ্জে ইয়াবা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি সোহাগকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৯ স্ট্যাটাস দিয়ে প্রমাণ দিতে হলো, আমি বেঁচে আছি : হানিফ সংকেত ধর্মপাশায় পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে ওসমানীনগরে শাহীন ডাকাত গ্রেফতার টাঙ্গাইলের সখিপুর আসামী গ্রেফতারও ভিকটিম উদ্ধার করল পুলিশ জৈন্তাপুরে নদী ভাঙ্গনের কবলে কয়েকটি গ্রামের বাসিন্ধা চিকনাগুলের বানবাসি মানুষের মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যানের ত্রাণ বিতরণ হানিফ সংকেতের মৃত্যুর গুজব রাজনগরে জনশুমারি বিষয়ক অবহিতকরণ সভা শাবিপ্রবিতে স্পিকার্স ক্লাবের আয়োজনে ক্যারিয়ার বিষয়ক সেমিনার
সংকটের শুরু যেখান থেকে হয় শ্রীলঙ্কার

সংকটের শুরু যেখান থেকে হয় শ্রীলঙ্কার

১৯৪৮ সালে স্বাধীনতার পর থেকে স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ সময় পার করছে শ্রীলঙ্কা। সরকার বিরোধী বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে আজ পদত্যাগ করেছেন। ৩১ মার্চ প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগের দাবিতে তাঁর বাসভবনে হামলার চেষ্টা করে শত শত বিক্ষোভকারী। এর মধ্য দিয়েই দ্বীপ দেশটিতে সরকার বিরোধী আন্দোলন দৃশ্যমান হয়। ৩১ মার্চ থেকে ৯ মে পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা সংকটের আলোচিত ঘটনাক্রম তুলে ধরেছে বার্তা সংস্থা এএফপি।
৩১ মার্চ: শত শত বিক্ষোভকারী প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগের দাবিতে তাঁর বাসভবনে হামলার চেষ্টা করেন।
১ এপ্রিল: বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ায় গোতাবায়া দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেন। আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে সন্দেহ ভাজনদের গ্রেপ্তার ও আটক রাখার ক্ষমতা দেন।
২ এপ্রিল: দেশজুড়ে ৩৬ ঘণ্টার কারফিউ জারি করা হয় এবং সেনা মোতায়েন করা হয়।
৩ এপ্রিল: ওই দিন গভীর রাতে শ্রীলঙ্কার মন্ত্রিসভার প্রায় সব সদস্যই ইস্তফা দেন। এতে গোতাবায়া ও মাহিন্দা কোণঠাসা হয়ে পড়েন।
৪ এপ্রিল: রাজাপক্ষের সরকার বিরোধী দলের সঙ্গে ক্ষমতা ভাগাভাগির প্রস্তাব দেয়। কিন্তু বিরোধীরা রাজি হয়নি। এদিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর পদত্যাগ করেন।
৫ এপ্রিল: শপথ নেওয়ার পরপরই অর্থমন্ত্রী আলী সাবরি পদত্যাগ করলে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ার সংকট আরও ঘনীভূত হয়। সাবেক মিত্ররা পদত্যাগের আহ্বান জানানোর পর প্রেসিডেন্ট পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারান।
৯ এপ্রিল: রাজাপক্ষে সরকারের পদত্যাগের দাবিতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন হাজারো মানুষ।
১০ এপ্রিল: চিকিৎসকেরা জানান, জীবন রক্ষাকারী ওষুধের মজুত প্রায় শেষ। তাঁরা সতর্ক করেন, ওষুধের সংকটে করোনা ভাইরাসের চেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হতে পারে।
১২ এপ্রিল: সরকার ৫১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বৈদেশিক ঋণ খেলাপির ঘোষণা দেয়। অতি প্রয়োজনীয় পণ্য কিনতে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভও শেষের দিকে বলে জানায়।
১৮ এপ্রিল: মন্ত্রিসভার নতুন সদস্য নিয়োগ। তবে নতুন সরকারে নিজের বড় ভাই মাহিন্দাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাখেন গোতাবায়া।
১৯ এপ্রিল: টানা কয়েক সপ্তাহের সরকার বিরোধী বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।
২৮ এপ্রিল: দেশব্যাপী ডাকা সাধারণ ধর্মঘটে শ্রীলঙ্কা থমকে যায়। এরপর ৬ মে আবার ধর্মঘট ডাকা হয়। এদিন রাজাপক্ষে আবার জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন।
৯ মে: ক্ষমতাসীন দল ও সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের পর অবশেষে মাহিন্দা প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

প্লিজ সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY Mission It Development ltd.
x
English version